জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা না থাকায় সরকার অস্বাভাবিকভাবে জ্বালানী তেলের দাম বাড়িছে – ড. আহমদ আবদুল কাদের

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ৭, আগস্ট, ২০২২, রবিবার
<strong>জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা না থাকায় সরকার অস্বাভাবিকভাবে জ্বালানী তেলের দাম বাড়িছে  – ড. আহমদ আবদুল কাদের</strong>

জ্বালানী তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজধানীতে খেলাফত মজলিসের মিছিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন সংগঠনের মহাসচিব ডক্টর আহমদ আব্দুল কাদের

বিজয় বাংলা অনলাইন | ঢাকা, ৭ আগস্ট ২০২২: খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা না থাকায় সরকার অস্বাভাবিকভাবে জ্বালানী তেলের দাম বৃদ্ধি করেছে। দেশের সকল জিনিসেরে দাম এখন আকাশ ছোঁয়া। দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতিতে জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছে। এর মধ্যে নতুন করে ডিজেল, পেট্্েরাল, অক্টেনের দাম বাড়ানো হয়েছে লিটার প্রতি ৩৪ থেকে ৪৬ টাকা। জ্বালানী তেলের দাম বাড়ানোর পর গতরাতে বাস ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। পণ্য পরিবহন খরচ বৃদ্ধি পেয়েছে। নতুনকরে সবকিছুর দামই বাড়বে। এভাবে জনগনের উপর জুলুম চলতে পারে না। অবিলম্বে জ্বালানী তেলে বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার করেত হবে। জ্বালানী তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরী আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


আজ ৭ আগস্ট রবিবার বিকাল ৪টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইটে ঢাকা মহানগরী উত্তরের সভাপতি ডাঃ রিফাত মালিকের সভাপতিত্বে ও দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক তাওহিদুল ইসলাম তুহিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংগঠনের নায়েবে আমীর মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী ও যুগ্মমহাসচিব অধ্যাপক মোঃ আবদুল জলিল। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজী, ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা আজীজুল হক, ঢাকা মহানগরী উত্তরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সাইফ উদ্দিন আহমদ খন্দকার, মূফতি আজীজুল হক, মূফতি আবদুল গণি, ইসলামী ছাত্র মজলিস ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ সভাপতি আহসান আহমদ খান, মাওলানা সরদার নেয়ামত উল্লাহ প্রমুখ।

নায়েবে আমীর মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী বলেন, জবরদস্তিমূলকভাবে জ্বালানী তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিতে জনগণ দিশেহারা। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
সমাবেশ শেষে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইট থেকে এক বিরাট বিক্ষোভ মিছিল পল্টন মোড়, বিজয়নগর সড়ক ঘুরে বিজয়নগর পানির ট্যাকিংর সামনে এসে শেষ হয়।

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 7
    Shares