নরসিংদী রায়পুরায় মুক্তিপণের ১০ লাখ টাকা না পেয়ে শিশু হত‍্যা, ৫ দিন পর লাশ উদ্ধার

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ৩, ডিসেম্বর, ২০২১, শুক্রবার
<strong>নরসিংদী রায়পুরায় মুক্তিপণের ১০ লাখ টাকা না পেয়ে শিশু হত‍্যা,  ৫ দিন পর লাশ উদ্ধার</strong>

গাজী ইসমাঈল ভাঁওয়ারী,নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি : আজ শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২১ইং
নরসিংদীর রায়পুরায় মুক্তিপণের ১০ লাখ টাকা না পেয়ে ইয়ামিন মিয়া (৮) কে হত্যা করে ডোবার পানিতে ডুবিয়ে রাখে অপহরণকারীরা। শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামের একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে ইয়ামিনের গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত ২৮ নভেম্বর থেকে ওই শিশু নিখোঁজ ছিলো।ইয়ামিন মিয়া (৮) উত্তর বাখরনগর গ্রামের জামাল মিয়ার ছেলে। বাবা জামাল মিয়া প্রবাসে থাকায় শিশু মা শামসুন্নাহার বেগমের কাছে লালিতপালিত হচ্ছিল।পুলিশের ভাষ্যমতে, শিশুটির মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছিলো ১০ লাখ টাকা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২৮ নভেম্বর উত্তর বাখরনগর ইউপি নির্বাচনের দিন থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না শিশুটিকে। এর পরের দিন থেকেই ফোনে এবং বিভিন্ন সময়ে শিশুটির পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করছিলো অপহরণকারী চক্র। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মাধ্যমে মুক্তিপণের এই রকম মেসেজ পেয়ে তার পরিবার রায়পুরা থানা পুলিশের শরণাপণ্ন হয় এবং গত ১ ডিসেম্বর থানায় অভিযোগ করে। এরপর থেকে পুলিশ কাজ শুরু করলেও তার কোনো খোঁজ মেলেনি।সবশেষ, শুক্রবার সকালে বাখনগর গ্রামের মোতালেব মিয়ার বাড়ির পেছনে এক ডোবা থেকে গলিত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

রায়পুরা থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আতাউর রহমান ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে আসছিল দুর্বৃত্তরা। নিখোঁজ ওই শিশুর মা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছিলেন অভিযোগপত্রে কারও নাম উল্লেখ না করলেও তিনি তিনজনকে সন্দেহ করেন বলে আমাদের জানান

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 25
    Shares