উলামাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ইসলাম বিদ্বেষী চক্রের ধারাবাহিক ষড়যন্ত্রের বহি:প্রকাশ – অধ্যক্ষ ইসহাক

বিজয়বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত ১৫, মে, ২০২২, রবিবার
<strong>উলামাদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ইসলাম বিদ্বেষী চক্রের ধারাবাহিক ষড়যন্ত্রের বহি:প্রকাশ – অধ্যক্ষ ইসহাক</strong>

খেলাফত মজলিসের তরবিয়তী মজলিসে বক্তব্য রাখছেন আমীরে মজলিস অধ্যক্ষ মাওলানা ইসহাক-ছবি-সংগৃহীত

বিজয় বাংলা অনলাইন | খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্ম¥দ ইসহাক বলেছেন, ১১৬ আলেম ও ইসলামী বক্তাকে হেয়প্রতিপন্ন করে দুদকে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের ইসলাম বিদ্বেষী চক্রের ধারাবাহিক ষড়যন্ত্রের বহি:প্রকাশ। তথাকথিত গণকমিশনের ইসলাম ও আলেম বিদ্বেষী কর্মকান্ড কোনভাবেই বরদাশ করা হবে না। অতীতে যারা ইসলামকে স্তব্ধ করে দিতে চেয়েছে তারাই স্তব্ধ হয়ে গেছে। ইসলামী বক্তারা আবহমান কাল থেকে ধর্মীয় সভা, ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে মানুষকে ন্যায় ও সত্যের দিকে, শান্তির ধর্ম ইসলামের দিকে উদ্বুদ্ধ করে আসছেন। ওয়াজ মাহফিল বন্ধের ষড়যন্ত্র তাওহিদী জনতা রুখে দিবে।
তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যের উদ্ধগতির কারণে দেশবাসীর নাভিশ্বস উঠেছে। সয়াবিন তেলের অভাবনীয় মুল্যবৃদ্ধির পর নতুন করে পেঁয়াজ, রোশন, আদাসহ সকল নিত্যপন্যেল দাম বাড়ছে। সরকার দ্রব্য মূল্য নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। দ্রব্যমূল্যের বাজার অসাধু ব্যবসায়ীক সিন্ডিকেটের দখলে চলে গেছে। খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় তরবিয়তী মজলিসে উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


আজ ১৫ মে রবিবার সকাল ৯টায় রাজধানীর রমনাস্থ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন সেমিনার হলে আমীরে মজলিস অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্ম¥দ ইসহাকের সভাপতিত্বে ও কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক অধ্যাপক কাজী মিনহাজুল আলমের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত তরবিয়তী মজলিসে আলোচনা পেশ করে ও উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র নায়েবে আমীর অধ্যাপক মাওলানা যোবায়ের আহমদ চৌধুরী, নায়েবে আমীর মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুল হালিম, মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের, যুগ্মমহাসচিব এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন, মুহাম্মদ মুনতাসির আলী, এবিএম সিরাজুল মামুন, ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সল, অধ্যাপক মোঃ আবদুল জলিল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজী, ডাঃ এসএম মোসাদ্দেক, মুফতি শীহাবুদ্দিন, অধ্যাপক এএসএম খুরশীদ আলম, মুফতি সাইয়্যেদুর রহমান, অধ্যাপক একেএম মাহবুব আলম, প্রকৌশলী আবদুল হাফিজ খসরু, ডাঃ রিফাত মালিক, অধ্যাপক মাওলানা আজীজুল হক, মাওলানা আফতাব উদ্দিন, মাওলানা মাহবুবুর রহমান হানিফ, সাহাব উদ্দিন আহমদ খন্দকার, তাওহিদুল ইসলাম তুহিন, মাওলানা সাইফউদ্দিন আহমদ খন্দকার প্রমুখ।

ড. আহমদ আবদুল কাদের তাঁর আলোচনায় বলেন, দেশ ও জনগণের মুক্তির জন্য খেলাফতে রাশেদার আদর্শের আলোকে একটি ন্যায় ও ইনসাফভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠাই জনগণের মুক্তির এক মাত্র পাথ। এ লক্ষ্যকে সামনে রেখে জনগণকে সংঘবদ্ধ করতে হবে।

সারাদেশের বিভিন্ন জেলা-মহানগরী শাখার নির্ধারিত ডেলিগেটরা দিনব্যাপী এ তরবিয়তী মজলিসে অংশগ্রহণ করেন।

শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন
  • 11
    Shares